মেনু নির্বাচন করুন
পাতা

কৃত্রিম প্রজননকেন্দ্র

 

 

সীমান্ত ইউনিয়নে কৃত্রিম প্রজননকেন্দ্র নাই অত্র উপজেলা থেকে বিভিন্ন পল্লি চিকিৎসরা কৃত্রিম প্রজনন প্রদান করে থাকে।

সব সময় যে চিকিৎসক সেবা দেন তাহার নাম নিম্নে দেওয়া হল ।বর্তমানে দেশে গবাদী পশুর দ্রুত উন্নয়নের লক্ষে ব্যাপকভাবে ও প্রজনন পদ্ধতি চালু আছে। এতে অতিঅল্পসময়ে কমখরচে এবং ব্যাপকারে গবাদী পশুর উন্নতজাত তৈরিকরা সম্ভব। এপদ্ধতিতে কৃত্তিম উপায়ে উন্নতজাতের ষাড়থেকে বীজ বা সীমেন সংগ্রহ করে বৈজ্ঞানিক পদ্ধতিতে সংরক্ষন করা হয় । অত:পর সে  সীমেন বৈজ্ঞানিক উপায়ে ইনজেকষনের মাধ্যামে বকনা বা গাভীকে প্রজনন করা হয় । ফলে গাভী গর্ভবর্তী হয় এবং বাচ্চা দেয় । এভাবে প্রর্যায়ক্রমে প্রজননের দ্বারা ব্যাপক হারে দেশী গবদিী পশুর জাত উন্নয়ন করা সম্ভব এভাবে প্রজনন সময় হলে গাভীকে প্রজননের পুর্বে ভালভাবে পরীক্ষা করে প্রজনন করা বিজ্ঞান সম্মত । দেশী বকনা সাধারনত আড়াই থেকে তিন  বৎসর বয়সে প্রজননের উপযুক্ত হয় । তবে প্রথম প্রজনন উদ্যমের ৩-৪ মাস পরে প্রজনন করানো ভাল । এতে গাভীর জীবনচক্রে  বাচ্চা ও দুধ বেশি পাওয়া যায় ।

 

ডাকে আশা গাভিকে উন্নত সিমেন দ্বারা যত্নসহকারে প্রযোনন করানো হয় ও গবাদি প্রাণীর  সুচিকিৎসা করা হয় ।

 

 

মোঃ আমির হোসেন

প্রাণী চিকিৎসক

মোবাইল নাম্বার  ০১১৯৬০২৭৩৭৮

 

যোগাযোগের ঠিকানা

জীবননগর ডিগ্রী কলেজ


Share with :

Facebook Twitter